Breaking News
Home / Sports / দলকে বিপদে ফেললেন টপ অর্ডারের ‘থ্রি এস’

দলকে বিপদে ফেললেন টপ অর্ডারের ‘থ্রি এস’

ক্রিকেট ইতিহাসে বিখ্যাত হয়ে আছেন ‘থ্রি ডাব্লিউ’ খ্যাত উইন্ডিজের তিন ব্যাটার ফ্রাঙ্ক ওরেল, এভার্টন উইকস আর ক্লাইড ওয়ালকট। ১৯৪৮ থেকে ১৯৫৮ পর্যন্ত এই তিনজন ক্যারিবীয় মিডল অর্ডারে রাজত্ব করেছেন। তাদেরকে ইতিহাসের সেরা মিডল অর্ডার ব্যাটার বলা হয়ে থাকে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে এমন ‘থ্রি ডাব্লিউ’ জাতীয় কোনো ত্রয়ী না থাকলেও চট্টগ্রাম টেস্টে দেখা যাচ্ছে ‘থ্রি এস’ ত্রয়ীকে! যারা টপ অর্ডারে নিয়মিত ব্যর্থ হচ্ছেন।

‘থ্রি এস’ মানে- সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান আর নাজমুল হোসেন শান্ত। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে এই তিনজনই ব্যর্থ হয়েছিলেন। তিনজনই ১৪ রান করে আউট হয়ে দলকে বিপদে ফেলেন।

সেখান থেকে ২০৬ রানের জুটি গড়ে দলকে ভালো জায়গায় নিয়ে যান লিটন দাস আর মুশফিকুর রহিম। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যর্থ হয়েছেন টপ অর্ডারের সেই ‘থ্রি এস’।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪৪ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। দলীয় ১৪ রানে সাদমান ইসলামকে হারিয়ে বাংলাদেশের বিপদের শুরু।

শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে লেগ বিফোর হয়ে ১ রানে ফিরেন সাদমান। স্কোরবোর্ডে আর কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই শাহিন আফ্রিদির বলে ‘ডাক’ মারেন নাজমুল হোসেন শান্ত (০)।

অধিনায়ক মুমিনুল হকও ভরসা দিতে পারেননি। তিনিও হাসান আলীর ২ বল খেলে ‘ডাক’ মেরে ফিরেন। সাইফ হাসান কিছুক্ষণ ক্রিজে ছিলেন। তার ৩৪ বলে ১৮ রানের ইনিংসটি থামে সেই শাহিন আফ্রিদির বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে। ২৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ এখন কাঁপছে। মুশফিকের সঙ্গী হয়েছেন ইয়াসির আলী।

About admin

Check Also

ডিআরএসের খোঁজে আইসিসিরও দ্বারস্থ হয়েছিল বিসিবি

ডিআরএসের খোঁজে মরিয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ক্রিকেটের অত্যাধুনিক এই প্রযুক্তি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *